ঢাকা      শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮
IMG-LOGO
শিরোনাম

টোয়েন্টিফোর টিকেট ডটকমের পরিচালক সোহেল গ্রেফতার

IMG
11 October 2021, 7:44 AM

ঢাকা, বাংলাদেশ গ্লোবাল: অনলাইন ট্রাভেল এজেন্সি টোয়েন্টিফোর টিকেট ডটকম এর পরিচালক এবং একটি জাতীয় দৈনিকের অনলাইন ইনচার্জ এম মিজানুর রহমান সোহেলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। কাফরুল থানায় সিআইডির দায়ের করা অর্থ পাচার আইনে করা মামলায় রবিবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজাদ রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মানি লন্ডারিং মামলায় এজাহারভুক্ত আসামি মিজানুর রহমান সোহেল। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সিআইডি জানায়, বিমানের টিকেট বিক্রির নামে ৪ কোটি ৪৪ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয় ই–কর্মাস কোম্পানি ‘টোয়েন্টিফোর টিকেট ডটকম’। গ্রাহক ও ৬৭টি এজেন্টের কাছ থেকে এই টাকা আত্মসাৎ করেছে তারা। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার সিআইডি কাফরুল থানায় কোম্পানির মালিক আব্দুর রাজ্জাকসহ পাঁচজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে। গত ৫ সেপ্টেম্বর কোম্পানির আরেক পরিচালক রাকিবুল হাসানকে চুয়াডাঙ্গা থেকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি।

সিআইডি আরও জানায়, সাধারণত এয়ারলাইন্সগুলো টিকেটের নির্ধারিত মূল্যে ৭ শতাংশ ছাড় দিয়ে থাকে। সেখানে ‘২৪টিকেট ডটকম’ ছাড় দিত ১২ শতাংশ। এই ছাড়ের কারণে অনেক এজেন্ট তাদের কাছ থেকে টিকেট কিনে গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করতো। তাদের টিকেট নিয়ে গ্রাহক বিমানবন্দরে এসে জানতে পারেন, সেই টিকেট বিক্রি হয়নি।

সিআইডি’র ফাইন্যান্সিয়াল ক্রাইম ইউনিটের বিশেষ পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবীর বলেন, ‘প্রাথমিক অনুসন্ধানে টোয়েন্টিফোর টিকেট’র বিরুদ্ধে ৪ কোটি ৪৪ লাখ ৩৬ হাজার ৩২৪ টাকা মানিলন্ডারিং করে আত্মসাতের তথ্য পাওয়া গেছে। প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং আইনে একটি মামলার তদন্ত চলছে। তারা কীভাবে ও কোথায় মানি লন্ডারিং করেছে তা জানার চেষ্টা চলছে।’

মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, প্রতারণা মামলায় ইতোমধ্যে তানভীর নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তদন্ত সূত্রে জানা যায়, টোয়েন্টিফোর টিকেট অনলাইনে বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের টিকেট কম দামে বিক্রির অফার দিতো। তাদের অফারে প্রলুব্ধ হয়ে বিভিন্ন ট্রাভেল এজেন্সি নিজেদের গ্রাহকের টিকেট তাদের মাধ্যমে করাতো। প্রতিষ্ঠানটি কিছু টিকিট ইস্যু করলেও মাঝে মধ্যে কারিগরি সমস্যা দেখিয়ে টিকেট বাতিল করেছে। এভাবে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে অফিস বন্ধ করে পালিয়ে গেছে এর দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কম দামের অফার দিয়ে ইস্ট ওয়েস্ট, আল রাজি, টেলন, সানজার এভিয়েশন ইত্যাদির মাধ্যমে টিকেট কিনতো টোয়েন্টিফোর টিকেট। এর কর্মকর্তারা লাপাত্তা হওয়ার খবর জানতে পেরে ওইসব প্রতিষ্ঠান যাত্রীদের সব টিকিট রিফান্ড করে দিয়েছে। তারা টোয়েন্টিফোর টিকেট’র কাছে কয়েক কোটি টাকা পাওনা রয়েছে বলে একটি প্রতিষ্ঠানের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

সিআইডি’র তথ্যানুযায়ী, টোয়েন্টিফোর টিকেট’র চেয়ারম্যান নাসরিন সুলতানা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক সম্পর্কে ভাইবোন। তাদের গ্রামের বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর থানাধীন হাসাদাহ বাজার এলাকায়। ভাইবোনের প্রতারকচক্রের সঙ্গে পরিচালক হিসেবে এম মিজানুর রহমান সোহেল নামের একজন সাংবাদিকসহ সিলেটের বাসিন্দা প্রদ্যোত বরণ চৌধুরী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আসাদুল ইসলাম জড়িত।

বাংলাদেশ গ্লোবাল/এমএস

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন