ঢাকা      সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
IMG-LOGO
শিরোনাম

শেখ হাসিনা সকলের উন্নয়নের কথা ভাবেন: সাংসদ নূর

IMG
24 November 2021, 9:16 PM

নীলফামারী, বাংলাদেশে গ্লোবাল: সরকার সুযোগ সৃষ্টি করে দেয় আর এই সুযোগগুলো কাজে লাগিয়ে সামর্থ্যবান ব্যক্তিরা মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারেন। শুধু সরকারের একার পক্ষে মানুষের সকল সেবা একযোগে দেয়া সম্ভব হয়ে উঠেনা। এজন্য সম্মিলিত ভাবে এগিয়ে আসলে দেশের উন্নয়ন হয় মানুষের পরিবর্তন ঘটে এবং মানুষের সেবা গ্রহণে সমস্যা হয় না।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাতে জেলা শহরের ডালপট্টি এলাকায় ‘ইবাদত হাসপাতাল’ এর উদ্বোধনী সভায় এ মন্তব্য করেন নীলফামারী-০২ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

সাংসদ নূর বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা জনগণের প্রধানমন্ত্রী। তিনি সকলের উন্নয়নের কথা ভাবেন এবং উন্নয়ন করেন। আর বিএনপি নেত্রী উন্নয়নে বৈষম্য করে ছিলেন।

প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ২০০১ সালে যখন আমি প্রথম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হই তখন আওয়ামীলীগ সরকার গঠন করতে পারেনি কিন্তু আমি এমপি নির্বাচিত হয়েছিলাম। বিরোধী দলের আমি এমপি হওয়ায় আমার এলাকায় কোন উন্নয়ন করেনি, কোন বরাদ্দও দেইনি। উল্টো বঙ্গবন্ধু কন্যার উদ্বোধন করা উত্তরা ইপিজেড বন্ধ করার পায়তারা করেছিলো। সেই ইপিজেড আজ অর্থনীতির চাকা সমৃদ্ধ করেছে নীলফামারীতে।

স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নের কথা বলতে গিয়ে নূর বলেন, নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতাল ২৫০ শয্যায় উন্নিত হয়েছে। মেডিক্যাল কলেজ হয়েছে। মেডিক্যাল এ্যাসিসটেন্ট ট্রেনিং স্কুল হয়েছে। এসবের ফলে স্বাস্থ্য সেবার আমূল পরিবর্তন ঘটবে এখানে। তিনি সাধারণ মানুষের কথা ভেবে ইবাদত হাসপাতাল যেন স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ দৃষ্টান্ত স্থাপন করে সে প্রত্যাশা করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নীলফামারী মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম, নীলফামারী পৌরসভার মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুজার রহমান, নীলফামারী চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সভাপতি মারুফ জামান কোয়েল এবং হাসপাতালটির চেয়ারম্যান হোসেন সোহেল রানা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাহাজ্জুত হোসেন টিটু, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেহফুজ আলম ও হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা সুমাইয়া ইসলাম বক্তব্য দেন।

ইবাদত হাসপাতাল চেয়ারম্যান হোসেন সোহেল রানা বলেন, আন্তর্জাতিক মানের ডায়াগনস্টিক সেবা দিচ্ছি আমরা। এখানে ৯৯ টাকা এবং ২৯৯ টাকার টোকেনে চিকিৎসক থেকে বিভিন্ন রোগের টেষ্ট করা হবে।
পাশাপাশি হৃদরোগীদের জন্য ব্যবহৃত এ্যাম্বুলেন্সে তাৎক্ষনিক সেবা দেয়ার মত একজন টেকনোলজিস্ট রাখা হচ্ছে। এছাড়া নরমাল ডেলিভারীকে প্রাধান্য দিয়ে প্রসূতি মায়েদের সেবা দেয়ার প্রস্তুতি রয়েছে এই হাসপাতালে।


বাংলাদেশে গ্লোবাল/এমএন

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন