ঢাকা      রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১
শিরোনাম

জয় দিয়ে বুসকেটস-আলবাদের বিদায় জানালো বার্সেলোনা

IMG
29 May 2023, 2:28 PM

স্পোর্টস ডেস্ক, বাংলাদেশ গ্লোবাল: স্প্যানিশ ফুটবল লিগ লা লিগায় রিয়াল মায়োর্কাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে বার্সেলোনা। এর আগেই তিন ম্যাচ হাতে রেখেই লা লিগা টাইটেল নিশ্চিত করে বার্সেলোনা। রোববার ন্যু-ক্যাম্পে মৌসুমের শেষ ম্যাচে মায়োর্কার মুখোমুখি হয় ব্লাউগ্রানারা। নিয়মরক্ষার হলেও ম্যাচটির রয়েছে আলাদা মাহাত্ম্য। রোববার রাতে প্রিয় ক্যাম্প নউতে বার্সেলোনার জার্সিতে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেললেন ক্লাব লেজেন্ড সার্জিও বুসকেটস এবং জর্ডি আলবা। বার্সেলোনার মাঠে নিজেদের শেষ ম্যাচটা খেলে ফেলেছেন তারা। আর বুসকেটস-আলবাদের বিদায়ী ম্যাচে মায়োর্কাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে বার্সেলোনা।

মৌসুম চলাকালেই সার্জিও বুসকেটস এবং জর্ডি আলবার বিদায়ের খবর দেয় বার্সেলোনা। মায়োর্কার বিপক্ষে ম্যাচ শেষ হতেই দুই তারকাকে অভিবাদন জানাতে মাঠে নেমে আসেন বার্সার সব খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফরা। ক্রাচে ভর করে নেমে আসেন এ ম্যাচেই ভয়ঙ্কর ফাউলের শিকার হওয়া আলেহান্দ্রো বালদে। ক্যাম্প ন্যুর জায়ান্ট স্ক্রিনে দেখানো হয় কাতালান ক্লাবটির স্মরণীয় কিছু পারফরম্যান্স। প্রদর্শন করা হয় দুই ক্লাব কিংবদন্তির নানা ছন্দময় খেলা।

এরপর এ মৌসুমে বার্সার জেতা দুটি ট্রফি লা লিগা ও কোপা দেল রে নিয়ে আসেন বুসকেটস ও আলবা। সে সময় দুজনকে দেয়া হয় গার্ড অব অনার। পরে তাদের শূন্যে ভাসিয়ে বিদায়ী মুহূর্ত আরও আনন্দঘন করে তোলেন সতীর্থরা। বিদায় বেলায় অশ্রুসজল চোখে সতীর্থদের শেষবারের মতো আলিঙ্গন করছিলেন বুসকেটস ও আলবা। পুরো ন্যু-ক্যাম্প করতালিতে মুখরিত হয়ে যায় সেসময়। শুধু বুসকেটস-আলবার জন্যই নয়, আপাতত ন্যু-ক্যাম্পে বার্সেলোনারও এটি শেষ ম্যাচ। সংস্কারের জন্য কিছুদিন বন্ধ থাকছে ব্লাউগ্রানাদের মাঠটি।

২০০৮ সালে বার্সেলোনার মূল দলে যোগ দেন সার্জিও বুসকেটস। ব্লাউগ্রানাদের হয়ে ৯টি লা লিগা, ৩টি চ্যাম্পিয়নস লীগ, ৭টি করে কোপা দেল রে ও স্প্যানিশ সুপার কাপ, ৩টি করে উয়েফা সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপসহ দলীয়-ব্যক্তিগত অনেক অর্জন করেছেন তিনি। ম্যাচের পর বুসকেটস বলেন, সব পাওয়ার তৃপ্তি নিয়েই বার্সেলোনা ছাড়ছেন তিনি। ন্যু-ক্যাম্পে নতুন কোনো ভূমিকায় ফেরার কথাও জানালেন বুসকেটস। তিনি বলেন, ‘স্বপ্ন দেখতাম, একদিন আমি এই স্টেডিয়ামে খেলব। যখন ছোট ছিলাম, এই মাঠে খেলা দেখতে আসতাম। প্রতিপক্ষের মাঠে গিয়েও দেখেছি। টিভিতে দেখেছি খেলা। বিশ্বের সেরা ক্লাবের একজন আমি, এই গৌরবের অনুভূতি কখনও কেউ কেড়ে নিতে পারবে না।’

বুসকেটস বলেন, ‘এখন আমি চলে যাচ্ছি। তবে ছেলেবেলায় যে স্বপ্ন দেখতাম, সবই পূরণ হয়েছে। সত্যি বলতে, আমার কল্পনার চেয়েও বেশি পেয়েছি। এত বছর এখানে থাকা, এত এত শিরোপা জিততে পারা, সবকিছু মিলিয়ে এই ক্লাব সবসময় হৃদয়ে থেকে যাবে। সবশেষে বলব, এটি বিদায় নয়, খুব শিগগিরই ফিরব।’

২০১২ সালে ভ্যালেন্সিয়া থেকে বার্সেলোনায় যোগ দেন জর্ডি আলবা। নীল-মেরুন জার্সি গায়ে ১১ বছরের পথ চলায় ৬টি লা লিগা, ১টি চ্যাম্পিয়নস লীগসহ দারুণ সব অর্জন আছে তার। বিদায়ী ম্যাচ শেষে আলবা বলেন, ‘এই মাঠে, এই শহরের পথে-প্রান্তরে যে ভালোবাসা আমার প্রতি আপনারা দেখিয়েছেন, সবকিছুর জন্য কৃতজ্ঞতা। এই জার্সি গায়ে জড়াতে পারাই দারুণ গৌরবের। আমার জীবনের সবচেয়ে সুখময় দিনগুলো কেটেছে এই জার্সিতে।’

জর্ডি আলবা বলেন, ‘এই মৌসুমে স্বাভাবিকের চেয়ে অনেকটা কম খেলতে পেরেছি। তবে চেষ্টা করেছি সবাইকে সহায়তা করতে। এখন সময় হয়েছে ভিন্ন কিছুর চিন্তা করার। তবে আজীবন আমি বন্ধু হয়েই রয়ে যাব।’

বুসকেটস-আলবার বিদায়ী ম্যাচের প্রথম মিনিটেই এগিয়ে যায়। গোলটি করেন স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড আনসু ফাতি। ২৪তম মিনিটে তার গোলেই ব্যবধান দ্বিগুণ করে বার্সেলোনা। আর ৭০তম মিনিটে স্কোরলাইন ৩-০ করেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার গাভি।

৩৭ ম্যাচে ২৮ জয় ও ৫ হারে ৮৮ পয়েন্ট শিরোপা জয়ী বার্সেলোনার। আগামী ৪ঠা জুন সেল্টা ভিগোর মাঠে মৌসুমের শেষ ম্যাচ খেলবে জাভি হার্নান্দেজের দল।


বাংলাদেশ গ্লোবাল/এইচএম
শিরোপা নিশ্চিত করার পর টানা দুই ম্যাচে হেরে যাওয়া বার্সেলোনা এ দিন মাঠে নামে জয়ের পরিকল্পনা নিয়েই। ১০ জনের মায়োর্কাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে কাতালানরা।
প্রথমার্ধে আনসু ফাতি জোড়া গোল করার পর দ্বিতীয়ার্ধে গোল করেছেন পায়েজ গাভিরিয়া।

৩৭ ম্যাচে ২৮ জয়ে বার্সার পয়েন্ট ৮৮। আর ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ।

ক্যাম্প ন্যুয়ে বার্সেলোনার হয়ে শেষ ম্যাচ খেলা স্প্যানিশ এই ডিফেন্ডার আলবা ও বার্সেলোনা অধিনায়ক বুসকেতসকে দাঁড়িয়ে সম্মান জানান সমর্থকরা। প্রায় ৯০ হাজার দর্শকের তুমুল করতালির মধ্য দিয়ে মাঠ ছাড়েন তারা।


বাংলাদেশ গ্লোবাল/এইচএম

সবশেষ খবর এবং আপডেট জানার জন্য চোখ রাখুন বাংলাদেশ গ্লোবাল ডট কম-এ। ব্রেকিং নিউজ এবং দিনের আলোচিত সংবাদ জানতে লগ ইন করুন: www.bangladeshglobal.com

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন