ঢাকা      রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
শিরোনাম

তাইওয়ানে যুদ্ধের ব্যাপারে চীনের হুঁশিয়ারি, চারপাশে যুদ্ধজাহাজের মহড়া

IMG
25 May 2024, 7:52 AM

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, বাংলাদেশ গ্লোবাল: চীন শুক্রবার তাইওয়ানের বিরুদ্ধে যুদ্ধের বিষয়ে সতর্ক করে বলেছে, “পরিপূর্ণ পূনঃএকত্রীকরণ” না হওয়া পর্যন্ত তারা পাল্টা পদক্ষেপ ও ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। স্বশাসিত এই দ্বীপের চারধারে চীনের বাহিনী সামরিক মহড়াও পরিচালনা করেছে।

সামরিক মহড়ার দ্বিতীয় দিনে তাইওয়ানের চারপাশে ঘুরপাক খেয়েছে যুদ্ধজাহাজ ও যুদ্ধবিমান। এই কার্যক্রম সম্পর্কে বেইজিং বলেছে, দ্বীপটি দখল করতে তারা সক্ষম কিনা তারই একটা পরীক্ষা ছিল এটা। তাইওয়ানে নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ গ্রহণের কয়েক দিন পরই এমন কর্মকাণ্ড চীনের।

তাইওয়ানের চতুর্দিকে বৃহস্পতিবার সকালে দুই দিনের যুদ্ধ মহড়া চালিয়েছে চীনের সামরিক বাহিনী। এই দ্বীপে “স্বাধীনতা বাহিনী”র রক্তগঙ্গা বইবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে চীন।

লাই চিং-তে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট পদে শপথ গ্রহণের তিন দিন পর এই সামরিক মহড়া শুরু করেছে বেইজিং। লাই-এর উদ্বোধনী ভাষণকে চীন “স্বাধীনতার স্বীকারোক্তি” বলে নিন্দা করেছে।

বেইজিং-এর প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র উ কিয়ান শুক্রবার বলেন, লাই “এক-চীন নীতিকে গুরুতরভাবে চ্যালেঞ্জ করেছেন…তাইওয়ানে আমাদের দেশবাসীকে যুদ্ধ ও বিপদের এক ঝুঁকিপূর্ণ পরিস্থিতির মধ্যে ঠেলে দিচ্ছে।”

এই মহড়া তাইওয়ানের উপর চীনের দমন পীড়নের অভিযান বৃদ্ধির অংশ। সাম্প্রতিক কয়েক বছরে তাইওয়ানের চারধারে একাধিক বড় মাপের সামরিক অনুশীলন চালিয়েছে চীন।

বিরোধ ও সংঘাত তাইওয়ান প্রণালীকে দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বের অন্যতম বিপজ্জনক কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করেছে। চলতি সপ্তাহের ঘটনাক্রম থেকে আশঙ্কা করা হচ্ছে যে, দ্বীপটিকে মূল ভূখণ্ডের শাসনের আওতায় আনতে চীন সামরিক বাহিনী ব্যবহার করতে পারে।

তাইওয়ানের সবচেয়ে শক্তিশালী মিত্র ও সামরিক সহযোগী যুক্তরাষ্ট্র বৃহস্পতিবার চীনকে “জোরালোভাবে” সংযত থাকতে বলেছে। জাতিসংঘ সকল পক্ষকেই অস্থিরতা ও সংঘাত এড়াতে আহ্বান জানিয়েছে।

এই মহড়া (কোড-নাম “জয়েন্ট সোর্ড-২০২৪এ”) শুরু হয়েছে এবং চীন জানিয়েছে, “তাইওয়ান স্বাধীনতা বাহিনীর বিচ্ছিন্নতাবাদী কার্যকলাপের জন্য কঠোর শাস্তি” হিসেবে তারা এটি পরিচালনা করবে।

সিসিটিভি জানিয়েছে, চীনের নাবিকরা সমুদ্রে তাইওয়ানের নাবিকদের আহ্বান করে “জোরপূর্বক পূনঃএকত্রীকরণ প্রতিরোধে”র বিরুদ্ধে সতর্ক করেছেন।

উহানের ৬০ বছর বয়সী নারী চেন ইয়ান এএফপি-কে তাইওয়ান সম্পর্কে বলেন, “আমাদের শিকড়টা অভিন্ন।” তিনি এ কথাও বলেন, “তাই আমার মনে হয়, একত্রীকরণ হবেই।”

চীন বারবার লাই-কে “বিপজ্জনক বিচ্ছিন্নতাবাদী” বলে অভিহিত করেছে এবং তিনি এই দ্বীপে “যুদ্ধ ও পতন” ডেকে আনবেন বলে দাবি করেছে তারা। বৃহস্পতিবার এক ভাষণে লাই বলেন, তাইওয়ানকে রক্ষা করতে তিনি “সামনের সারিতে দাঁড়াবেন।” যদিও তিনি ওই মহড়ার প্রসঙ্গ সরাসরি উত্থাপন করেননি।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন বৃহস্পতিবার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। চীনের অপপ্রচার ছড়ানো সংস্থাগুলি সাধারণত যে ভাষা ব্যবহার করে থাকে, সেই ভাষায় তিনি সতর্ক করেছেন।

সবশেষ খবর এবং আপডেট জানার জন্য চোখ রাখুন বাংলাদেশ গ্লোবাল ডট কম-এ। ব্রেকিং নিউজ এবং দিনের আলোচিত সংবাদ জানতে লগ ইন করুন: www.bangladeshglobal.com

সর্বশেষ খবর

আরো পড়ুন